সব আর্টিকলসে ফিরে যান

ম্যালেরিয়া ও ডেঙ্গির মধ্যে মিল

অনেক লোকজন এখন বিশেষ করে উত্তর ভারতে ম্যালেরিয়া বা ডেঙ্গি থেকে ভুগছে। এগুলি তীব্র, দীর্ঘস্থায়ী এবং সংক্রমিত রোগ, এর কারণে ব্যক্তির মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

একটা প্রচলিত বিষয় হল, ডেঙ্গি হল মানব দেহে স্ত্রী এন্ডিস মশার কামড়ে হওয়া একটি ভাইরাল ইনফেকশন, যেখানে ম্যালেরিয়া হল একটি প্যারাসাইট প্লাজমোডিয়াম থেকে হয় এবং মানব দেহে এবং পশুদের ক্ষতি করতে পারে।

ম্যালেরিয়া (একটি সংক্রমিত রোগ) যেটি সরাসরি রেড ব্লাড সেলস এর ক্ষতি করে বা RBC ইতিমধ্যেই সংক্রমিত কোন ব্যক্তি বা প্রাণীকে এনোফিলিস মশার কামড়ে বাহিত হতে পারে। অন্যদিকে, ডেঙ্গি কোন সংক্রমিত রোগ নয় কিন্তু RBC ও প্লেটলেট// অ্যানোফেলিস মশার ক্ষতি করে। ডেঙ্গিতে আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে RBC ও প্লেটলেট কমতে শুরু করে। ডেঙ্গি মশা দিনের আলোতে কোন ব্যক্তিকে কামড়ায় এবং সঠিক কোন লক্ষণ বা উপসর্গ দেখা দেওয়ার আগে 4 থেকে 13 দিনের মধ্যে এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া দেখা যায়।

ম্যালেরিয়া ও ডেঙ্গির কিছু কমন উপসর্গ আছে। উভয়ই শুরু হয়

মাথা ব্যাথা

সাধারণ দুর্বলতা

প্রচন্ড পেশি যন্ত্রণা

পিঠের নিচের দিকের ব্যাথা,

আস্তে আস্তে এর ফলে

ফ্লু এর মতো অসুস্থতা

ঠান্ডা লাগা

বমি বমি ভাব

বমি করা

কাশি করা

ডায়ারিয়া হয়

ডেঙ্গি জ্বর প্লেটলেট নামেও পরিচিত, এর তীব্রতা মাঝারি থেকে প্রচন্ড হতে পারে। আরো মারাত্মক রূপ হল হাড় ভাঙ্গা জ্বর এবং ডেঙ্গি শক সিন্ড্রোম (DHF)। যে সমস্ত ডেঙ্গি রোগীর অবস্থা খুব খারাপ তাদেরকে সাধারণত হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

গোড়াতে ম্যালেরিয়া ধরা পড়লে নিয়ন্ত্রণ ও চিকিৎসা করা যেতে পারে। “খারাপ বাতাস” এর ইতালীয় শব্দ থেকে এসেছে এবং আসলে মনে করা হয়েছিল যে রোমের সোয়ামের ধোঁয়া ম্যালেরিয়ার কারণ প্রায়ই প্রার্দুভাব দেখা গিয়েছিল। ম্যালেরিয়ার রোগজীবাণুর ডিম ফোটার সময়সীমা হল 7 দিন কিন্তু ডেঙ্গির ক্ষেত্রে বাড়া কমা করে।

উভয় রোগেই মৃত্যু ঘটতে পারে এবং খুবই প্রাণঘাতী। এগুলি শুরু হয় কোন ব্যক্তিকে মশার কামড়ে এবং প্রায়ই মৃত্যু হয়। মশা আপনাকে যেখানে খুশি কামড়াতে পারে যার ফলে মারাত্মক জটিলতা দেখা দেয়।

সম্পর্কিত প্রোডাক্টস এক্সপ্লোর করুন

সঠিকভাবে
পোকামাকড়ের মোকাবেলা করুন

আপনার বা‌ড়ি পোকামাকড়ের মুক্ত রাখার পরামর্শ ও কৌশল!

  • ডেঙ্গি
  • চিকুনগুনিয়া
  • মাসিক রান্নাঘরের পরিষ্কার
  • আরশুলা
  • ম্যালেরিয়া